ঐশ্বরিয়ার এক রাত ১০ কোটি টাকা

বলিউডের মোস্ট গর্জিয়াস লেডি ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে নিয়ে সরগরম পেজ থ্রি-র পাতা। রিল থেকে রিয়েল তারকাদের পুরোটাই যেন গসিপে মোড়া। সেই তালিকায় নিঃসন্দেহে রয়েছে বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। অভিনয় থেকে রিলেশন সবসময়েই লাইমলাইটের শীর্ষে বচ্চন বধূ।

ঐশ্বর্যর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে রীতিমতো উত্তাল বলিউড। তবে শুধু বি-টাউনেই নয়, পাকিস্তানের সঙ্গে একবার নাম জড়িয়েছিল ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের, সেই খবর প্রকাশ্যে আসতেই রেগে আগুন হয়ে গেছিলেন রাই সুন্দরী, জেনে নিন কী সেই কারণ।

বলিউডের প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। বি-টাউনে একের পর এক অভিনেতার সঙ্গে বারবার নাম জড়িয়েছে অভিনেত্রীর। নিজের ব্যক্তিগত জীবন মিডিয়া এবং জনসাধারণের থেকে দূরে সরিয়ে রাখার চেষ্টা করেও তাতে ব্যর্থ হয়েছেন।

একাধিক সম্পর্কে জড়ানো থেকে ধুম ২ ছবিতে হৃত্বিকের সঙ্গে চু’ম্বন দৃশ্য, দ্বিতীয়বার মা হওয়ার গুঞ্জন, বহুলচর্চিত ব্রেক আপ , আ’ত্মহ’ত্যার চেষ্টা সব মিলিয়ে ঐশ্বর্যকে নিয়ে আজও সরগরম পেজ-থ্রি পাতা।

সম্পর্ক, বিচ্ছেদ, বিবাহ, সব বিষয়েই পেজ থ্রি-র শিরোনামে বচ্চন বধূ। বি টাউনের চর্চিত কাপলদের মধ্যে অন্যতম ঐশ্বর্য। একবার পাকিস্তানের সঙ্গেও নাম জড়িয়েছিল ঐশ্বর্যর। সালটা ২০০৮ থেকে ২০১৩। পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন আসিফ আলি জারদারি। এই আসিফ আলির সঙ্গেই নাম জড়িয়েছিল রাই সুন্দরীর।
পাকিস্তানে প্লে বয় ইমেজও ছিল আসিফ আলি জারদারির। বিষয়টি একটু খোলসা করে বলা যাক।

পাকিস্তানের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ শাহিদ মাসুদ একটি আর্টিকেলে লিখেছিলেন রাষ্ট্রপতি ভবনে অনুষ্ঠানের জন্য নাকি প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্যকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এবং তার জন্য নাকি ১০ কোটি টাকাও তাকে দেওয়া হয়েছিল।সেই সময় গুঞ্জনে আরও শোনা যায়, এক রাতের জন্যই নাকি ১০ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছিল ঐশ্বর্যকে। তবে ভারত কিংবা পাকিস্তান কেউই বিষয় জানতে না।

যদিও এই খবরের সত্যতা নিয়ে আজও ধোঁয়াশা রয়ে গেছে। কারণ এখনও পর্যন্ত এমন কোনও তথ্য মেলেনি যেখানে ঐশ্বর্য পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি ভবনে পারফর্মের জন্য ১০ কোটি টাকা নিয়েছিলেন।এই বিষয়টি নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। ঐশ্বর্যও পুরো বিষয়টি নিয়ে রেগে আগুন হয়েছিলেন।